পশ্চিমবঙ্গে ছেয়ে গেছে বাংলাদেশের বড়ি! কিসের ওষুধ? জানলে চমকে যাবেন

Editor Desk

Follow
Whatsapp Channel

Bangladesh Pill: এক সময় বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে উভয় দেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর কাছে চিন্তার প্রধান বিষয় ছিল গরু পাচার, মাদক ও স্বর্ণের চোরা চালান। এখনো অজান্তেই এই চোরাচালান চললেও কঠোর নজরদারিতে তা কিছুটা সীমিত তবে বর্তমানে চোরাচালানের অন্যতম বস্তু ‘গর্ভনিরোধক বড়ি।’

মাদকের পাশাপাশি হঠাৎ করেই চোরাচালারকারীদের পাচারের নতুন পন্য হয়ে উঠেছে জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি। বাংলাদেশ থেকে কিছুদিন ধরেই সস্তা দামের জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি পশ্চিমবঙ্গ ও আসামে দেদার পাচার হয়ে চলেছে। সম্প্রতি একটি খবর সামনে এসে যেখানে দেখা যাচ্ছে মুর্শিদাবাদ সীমান্তে পাচার করা হচ্ছে এই জিনিস। বাংলাদেশের সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলিতে মহিলাদের বিনামূল্যে বিলি হওয়া এই ট্যাবলেট ছেয়ে গেছে রাজ্যের বাজারে।

মুর্শিদাবাদে অভিযান, উদ্বার হলো গর্ভনিরোধক বড়ি-

লোকসভা নির্বাচনের কারণে এই পাচার কাজ কিছুটা হলেও স্তিমিত ছিল, কিন্তু লোকসভা নির্বাচন মিটতেই পাচার চক্র আবার সক্রিয় হয়েছে বলেই খবর। BSF সূত্র মারফত খবর, চলতি মাসেই মুর্শিদাবাদের বিভিন্ন সীমান্ত এলাকা থেকে কুড়ি হাজারের বেশি গর্ভনিরোধক ট্যাবলেটের পাতা উদ্ধার হয়েছে‌।

মুর্শিদাবাদের বিভিন্ন সীমান্তে যেমন রানিতলা, সুতি, লালবাগ এলাকায় অভিযান চালানো হয়েছিল আর সেখান থেকেই কুড়ি হাজার এই ট্যাবলেটের পাতা উদ্ধার হয়। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় পাঁচ লক্ষ টাকা। অর্থাৎ বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও হাসপাতাল গুলিতে বিনামূল্যে যে গর্ভনিরোধক বড়ি দেওয়া হয় সেই ওষুধ পাচারকারীদের হাতে পৌঁছে যাচ্ছে।

কেন পাচারের দ্রব্য হিসাবে জনপ্রিয় গর্ভনিরোধক বড়ি?

মুর্শিদাবাদের জলঙ্গির এক ওষুধ বিক্রেতার বক্তব্য অনুযায়ী ভারতে ভালো মানের ২১ টি গর্ভনিরোধক বড়ির দাম ৭৫-৮০ টাকা। সেখানে একই মানের গর্ভনিরোধক ওষুধ পাওয়া যায় ২০ থেকে ৩০ টাকায়।

কিভাবে পাচারকারীদের হাতে পৌঁছে যাচ্ছে এই ওষুধ-

এই বিষয়ে গোয়েন্দা আধিকারিক এর তরফে জানানো হয়েছে বাংলাদেশের সীমান্ত লাগোয়া হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলিতে দেওয়া ওষুধগুলি সংগ্রহ করে পাচারকারীরা। তারপর সেই ওষুধ কাঁটাতারের উপর থেকে ভারতের সীমান্তের দিকে ছুড়ে দেয় রাতের অন্ধকারে। পুলিশ সূত্রের অনুমান অনুযায়ী সরকারি এই ওষুধের পাচারের পেছনে হাসপাতালের কর্মীদের মদত থাকে। এখনো পর্যন্ত গর্ভনিরোধক ওষুধগুলি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে তবে বর্তমানে ওই চক্রটিকে ধরার জন্য চেষ্টা চলছে।

About Author

Leave a Comment